নিঃসন্তান দম্পতিদের জন্য রোবট বাচ্চা

মানুষের কষ্ট লাঘব করার স্বার্থেই রোবট প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। তবে এবার শুধু শারীরিক কষ্ট নয়, মানসিক কষ্ট লাঘবের ক্ষেত্রেও সহায়তা করবে রোবট। আর এমনই রোবট তৈরি করেছে জাপানি অটোমোবাইল প্রতিষ্ঠান টয়োটা মোটর করপোরেশন। এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এই রোবটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘কিরোবো মিনি’। নিঃসন্তান দম্পতিদের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে এই রোবট। কিরোবো মিনির চিফ ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার ফুমিনোরি কাতাওকা বলেন, ‘রোবটটিকে কোলে তুলে নিলে সেটি হালকা কাঁপবে। ছোট বাচ্চাদের মতোই বসে থাকতে পারবে। বাচ্চাদের মতোই বসতে গিয়ে পড়ে যাবে রোবটটি। কারণ এর ভারসাম্য রাখার ক্ষমতা সীমিত করা হয়েছে। ছোট বাচ্চাদের মতোই মনে হবে এসব রোবটকে। মানসিকভাবেও এর সঙ্গে সংযুক্ত হতে পারবেন নিঃসন্তান দম্পতিরা। এতে তাঁদের অভাব কিছুটা হলেও লাঘব হবে।’

রোবটটি বাচ্চাদের মতো স্বরে কথা বলতে পারে। রোবটটির দাম রাখা হয়েছে ৩৯২ মার্কিন ডলার। আগামী বছর থেকে জাপানে বিক্রি শুরু হবে কিরোবি মিনি রোবটের। এ রকম আরো কিছু বাচ্চা রোবট নিয়ে কাজ করছে টয়োটা। এ রকমই একটি রোবট ‘জিবো’, যার ডিজাইন করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির বিজ্ঞানীরা।

কাতায়োকা আরো জানান, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে গুরুত্বসহকারে গবেষণা করছে টয়োটা। বিশেষ করে স্বয়ংক্রিয় গাড়ি প্রযুক্তিতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করতে চায় তারা। এর পাশাপাশি রোবটের মধ্যে মানবিক অনুভব কীভাবে আনা যায় তা নিয়েও গবেষণা করছে টয়োটা। ভবিষ্যতে কিরোবি মিনির মতো আরো রোবট তৈরি করা হবে যা মানুষের সঙ্গে মানসিকভাবে যুক্ত হতে পারবে।